আপুরা, আসুন সতর্ক হই …

Must Read

আপুরা, আসুন সতর্ক হই …

আপুরা, আসুন সতর্ক হই ... ১। রাতে একা বহুতল ভবনের লিফটে উঠার সময় যদি কোন অচেনা এবং সন্দেহজনক পুরুষের পাল্লায় পরেন তখন...

একজন ডাক্তারের গল্পঃ

একজন ডাক্তার বাংলাদেশে প্রাইভেট হাসপাতালের চাকরি ছেড়ে কানাডায় গিয়ে একটি ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে সেলসম্যান হিসাবে যোগ দিলেন। স্টোরের মালিক জিজ্ঞেস করলেন-...

মানুষ-হ-মানুষ, অমানুষের-দল-মানুষ-হ

#মানুষ_হ_মানুষ   #অমানুষের_দল_মানুষ_হ আপনাকে যদি জিজ্ঞেস করা হয় একটা ব্লেড দিয়ে আপনি সাধারণত কি কাজ করেন? আপনি হয়তো বলবেন "আমরা এটা...
আপুরা, আসুন সতর্ক হই …
১। রাতে একা বহুতল ভবনের লিফটে উঠার সময় যদি
কোন অচেনা এবং সন্দেহজনক পুরুষের পাল্লায়
পরেন তখন কি করনীয়?
বিশেষজ্ঞরা বলেনঃ ধরুন আপনি ১৩ তালায় যাবেন,
লিফটে উঠে ১৩ পর্যন্ত সবগুলো বাটন প্রেস
করুন। কারো সাহস হবে না প্রতি তালায় থামছে এমন
লিফটে আপনার উপর হামলা করবে।

২। আপনি বাসায় একা, এই অবস্থায় কেউ যদি আপনার
উপর হামলা করে তাহলে সোজা রান্নাঘরে চলে
যান।
বিশেষজ্ঞরা বলেনঃ শুধুমাত্র আপনিই জানেন আপনার
রান্নাঘরে কোথায় মরিচ, হলুদের গুড়া আছে।
কোথায় ছুড়ি-চামচ বা প্লেট আছে। এইগুলোই
ভয়ংকর হাতিয়ার হয়ে উঠতে পারে। কিছু না হলেও
অন্তত প্লেট ছুড়ে মারুন তার দিকে। প্লেট
ভেঙ্গে যাক বা খুব শব্দ হোক। মনে রাখবেন
আওয়াজ হল একজন মলাস্টারের বড় দুশমন। কারন তারা
চাইবেই না যে কেউ আওয়াজ শুনে তাকে ধরে
ফেলুক।

৩। রাতে ট্যাক্সি বা অটো নেবার সময়ঃ
বিশেষজ্ঞরা বলেনঃ রাতে অটো বা ট্যাক্সিতে
উঠার সময় ড্রাইভারকে শুনিয়ে শুনিয়ে কাউকে কল
দিয়ে তার নাম,গাড়ীর নাম্বার আর সব ডিটেইলস
বলে দিন। কেউ কল না ধরলেও এমন ভান করুন যে
আপনি কথা বলছেন। এরপর আর ড্রাইভারের সাহস
হবে না আপনাকে কিছু করার। কারন সে জানে
আপনার কিছু হলে তার বিপদ সব থেকে বেশি। সে
নিজ দায়িত্ত্বে এখন আপনাকে সেইফলি বাড়ি নিয়ে
যাবে।

৪।ড্রাইভার যদি এমন কোন রাস্তায় নিয়ে যায়
যেদিকে তার যাবার কথা না, আর আপনার মনে হয়
আপনি বিপদে পরতে যাচ্ছেন তখন কি করনীয়?
বিশেষজ্ঞরা বলেনঃ আপনার ব্যাগের হ্যান্ডেল বা
ওড়না তার গলাতে পেচিয়ে পিছন থেকে টান দিন।
কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে সে অসহায় ফিল
করবে। আপনার কাছে ব্যাগ বা ওড়না না থাকলে, তার
শার্ট এর কলার ধরে টান দিন। শার্ট এর প্রথম দুইটি
বোতাম সেই একই কাজ করবে। তার গলায় চেপে
বসবে।

৫। রাতের বেলা কেউ পিছু নিলে কি করনীয়?
বিশেষজ্ঞরা বলেনঃ কোন দোকান বা বাসায় চট
করে ঢুকে পড়ুন আর আপনার অবস্থা তাদের জানান।
রাত বেশি হলে যদি কোন দোকান খোলা না পান
তাহলে এটিএম বুথ এ চলে যান। সেখানে সারা রাত ই
প্রায় গার্ড থাকে। না থাক্লেও অন্তত সিসিটিভি
থাকবে। এমন যায়গায় কেউ আপনাকে আক্রমণ
করার সুযোগ পাবে না।

৬। কারো থেকে পানি, জুস বা সফট ড্রিঙ্কস খাবে
না। দোকান থেকে কেনার আগে তা ভালো মত
সিল করা কিনা দেখে নিন। সিল করা না হলে কিনবেন
না।

৭। সবসময় নিজের কাছের কেউ, যেমন ভাই/বাবা/
স্বামী/বন্ধু কারো নাম্বার স্পিড ডায়ালে রেখে
দেন। যেন আপনি বিপদ ফিল করলে একটা বোতাম চাপ দিয়েই call করতে পারেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest News

আপুরা, আসুন সতর্ক হই …

আপুরা, আসুন সতর্ক হই ... ১। রাতে একা বহুতল ভবনের লিফটে উঠার সময় যদি কোন অচেনা এবং সন্দেহজনক পুরুষের পাল্লায় পরেন তখন...

More Articles Like This